টাইম টিউন ডেস্ক
প্রকাশিত:
১৮ অগাস্ট, ২০১৯ ০৬:৫০ পিএম


ধর্ষণ মামলা তুলে না নেওয়ায় মাদ্রাসাছাত্রীকে ফের গণধর্ষণ


ধর্ষণ মামলা তুলে না নেওয়ায় মাদ্রাসাছাত্রীকে ফের গণধর্ষণ

ধর্ষণচেষ্টার মামলা তুলে না নেওয়ায় চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলায় বাবা-মাকে মারধর করে বেঁধে রেখে মেয়েকে গণধর্ষণ করা হয়েছে। শনিবার (১৭ আগস্ট) রাতে উপজেলার নতিডাঙ্গা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

এ ঘটনায় ধর্ষণে শিকার মাদ্রাসাছাত্রীর বাবা নতিডাঙ্গা গ্রামের জয়নালের ছেলে লাল্টু (৩৫), মৃত সভা ঘোরামীর ছেলে শরীফুল ইসলাম (৪০) ও মিলনের ছেলে রাজুকে (৩০) আসামি করে আলমডাঙ্গা থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। ইতোমধ্যে মামলার প্রধান আসামি লাল্টুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, আলমডাঙ্গা উপজেলার নতিডাঙ্গা গ্রামের বাসিন্দা ওই মাদ্রাসাছাত্রীকে ১ মাস আগে ধর্ষণের চেষ্টা চালায় অভিযুক্তরা। এ ঘটনায় নির্যাতিতা মাদ্রাসাছাত্রীর মা শীলা খাতুন বাদী হয়ে চুয়াডাঙ্গা আদালতে ধর্ষনচেষ্টা মামলা দায়ের করেন। 

এ বিষয়ে নির্যাতিত মাদ্রাসাছাত্রীর মা জানান, মামলা তুলে নেওয়ার জন্য প্রায়ই নানাভাবে হুমকি দিত আসামিরা। গত ৩ দিন আগেও হুমকি দিয়ে বলা হয় ‘মামলা তুলে না নিলে তোর মেয়েকে পুনরায় ধর্ষণ করা হবে।’ 

নির্যাতিত ওই মাদ্রাসাছাত্রীর বাবা জানান, রবিবার ছিল ওই মামলার স্বাক্ষ্যগ্রহণের দিন। ঠিক এর আগের দিন শনিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে লাল্টু, রাজু ও শরিফুল লাঠিসোটা নিয়ে আমার ঘরে প্রবেশ করে আমাদেরকে মারধর করে। এক পর্যায়ে আমাদের দুই জনকে হাত-পা বেঁধে আমার মেয়েকে তুলে নিয়ে যায়। এরপর তাকে গ্রামের মাথাভাঙ্গা নদীর তীরে একটি শ্বশান ঘাটের কাছে বাঁশ বাগানে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরে স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় ভোরে মেয়েকে উদ্ধার করি।

এ বিষয়ে আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আসাদুজ্জামান মুন্সী জানান, গণধর্ষণের বিষয়টি অবহিত হওয়ার পর দ্রুত মাদ্রাসাছাত্রীকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। একই সঙ্গে নির্যাতিত মাদ্রাসাছাত্রীর বাবা মামলা দায়ের করার পর অভিযান চালিয়ে মামলার প্রধান আসামি লাল্টুকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য আসামিদেরও গ্রেফতারে অভিযান চালানো চলছে।


আপনার মতামত লিখুন :
বাংলাদেশ এর আরও খবর

আরো পড়ুন
ফ্রান্সে আশ্রয়প্রার্থীদের গ্রাম অঞ্চলের ক্যাম্পে স্থানান্তর শুরু!

ফ্রান্সে আশ্রয়প্রার্থীদের গ্রাম অঞ্চলের ক্যাম্পে স্থানান্তর শুরু!

ফ্রান্সে অভিবাসীদের গ্রামে স্থানান্তর করার প্রক্রিয়া শুরু করেছে ফ্রান্স সরকার।…

৮ বছর বয়সী ছাত্রকে যৌন নির্যাতনের দায়ে মাদ্রাসা শিক্ষক আটক

৮ বছর বয়সী ছাত্রকে যৌন নির্যাতনের দায়ে মাদ্রাসা শিক্ষক আটক

রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে মাদরাসার দ্বিতীয় শ্রেণির এক ছাত্রকে যৌন নির্যাতনের দায়ে শিক্ষককে আটক…

পর্তুগাল আওয়ামী লীগ-বিএনপির রাজনৈতিক প্রতিহিংসার সংঘর্ষে আহত ৬ নিহত ১

পর্তুগাল আওয়ামী লীগ-বিএনপির রাজনৈতিক প্রতিহিংসার সংঘর্ষে আহত ৬ নিহত ১

পর্তুগাল গত ১৭ জানুয়ারি শনিবার রাজনীতি পূর্বশত্রুতার জের ধরে বিএনপির সভাপতি…

মা কোলে নিতেই নড়ে উঠলো মৃত বলে ফেলে রাখা নবজাতক!

মা কোলে নিতেই নড়ে উঠলো মৃত বলে ফেলে রাখা নবজাতক!

চুয়াডাঙ্গা শহরের হাসপাতাল সড়কের ‘উপশম নার্সিং হোম’-এ নরমাল ডেলিভারির মাধ্যমে…

সিরিয়া যুদ্ধ: ইদলিবে বিমান হামলায় নিহত ১৮

সিরিয়া যুদ্ধ: ইদলিবে বিমান হামলায় নিহত ১৮

সিরিয়ার ইদলিব প্রদেশে বিমান হামলায় অন্তত ১৮ বেসামরিক নাগরিক নিহত…

ঢাকা সিটি ভোট পিছিয়ে ১ ফেব্রুয়ারি

ঢাকা সিটি ভোট পিছিয়ে ১ ফেব্রুয়ারি

সরস্বতী পূজার্থীদের আন্দোলনের মুখে ঢাকার দুই সিটির ভোটের তারিখ পরিবর্তন…

বড়লেখায় একসাথে ৫ খুন

বড়লেখায় একসাথে ৫ খুন

মৌলভীবাজারের বড়লেখায় একই পরিবারের তিনজনসহ পাঁচজনকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।…

জগন্নাথপুরের পৌর মেয়র চির নিদ্রায় শায়িত আব্দুল মনাফ

জগন্নাথপুরের পৌর মেয়র চির নিদ্রায় শায়িত আব্দুল মনাফ

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর পৌর সভার সদ্য প্রয়াত মেয়র আলহাজ্ব আবদুল মনাফকে…