আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত:
২৪ জুলাই, ২০১৯ ০২:২৯ পিএম


জার্মানিতে অভিবাসী কমলে বাড়ির সংকট দূর হতে পারে


জার্মানিতে অভিবাসী কমলে বাড়ির সংকট দূর হতে পারে

জার্মানিতে এখন প্রতিবছর গড়ে চার লাখের বেশি মানুষ অভিবাসী হচ্ছে৷ এর সঙ্গে তাল মিলিয়ে পর্যাপ্ত ফ্ল্যাট তৈরি হচ্ছে না৷ ফলে বাড়ি ভাড়া বাড়ছে৷ তবে কয়েক বছর পর অবস্থার পরিবর্তন হতে পারে৷

জার্মানির ইকোনমিক ইনস্টিটিউট, আইডাব্লিউ সোমবার একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে৷ এতে বলা হচ্ছে, গত তিন বছরে প্রতি বছর গড়ে দুই লাখ ৮৩ হাজার নতুন ফ্ল্যাট তৈরি হয়েছে, যা চাহিদার মাত্র ৮০ শতাংশ৷ চাহিদা পূরণ করতে চলতি বছর ও ২০২০ সালে গড়ে তিন লাখ ৪০ হাজার ফ্ল্যাট তৈরি করতে হবে বলে মনে করছেন আইডাব্লিউর প্রতিবেদনের লেখকরা৷

তবে তাঁদের ধারনা, জার্মানিতে এখন যে পরিমাণ  অভিবাসী আসছে  সেটা সবসময় এক থাকবে না৷ ফলে সেই সময় বাড়ির সংকট নাও থাকতে পারে৷ আইডাব্লিউ মনে করছে, ২০২৫ সাল নাগাদ ফ্ল্যাটের চাহিদা প্রতিবছর দুই লাখ ৬০ হাজারে নেমে যেতে পারে৷ ২০৩০ সাল নাগাদ সেই সংখ্যা আরও কমে দুই লাখ ৪৬ হাজার হতে পারে৷

আইডাব্লিউ বলছে, জার্মানির বড় শহরগুলোতে ফ্ল্যাটের সংকট বেশি৷ কোলন আর স্টুটগার্টে সমস্যাটি সবচেয়ে বড়৷ ঐ দুই শহরে গত তিন বছরে ফ্ল্যাটের চাহিদার মাত্র অর্ধেক নির্মিত হয়েছে৷ 

রাজধানী বার্লিন, মিউনিখ ও ফ্রাঙ্কফুর্টের মতো শহরগুলোতেও চাহিদার তুলনায় কম ফ্ল্যাট তৈরি হয়েছ৷ তবে সেখানকার সমস্যা কোলন আর স্টুটগার্টের মতো নয়৷

কারণ কী?

রেগেন্সবুর্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারন্যাশনাল রিয়েল এস্টেট বিজনেস স্কুলের সায়েন্টিফিক ডাইরেক্টর টোবিয়াস ইয়স্ট বলছেন, ভবন তৈরির মতো পর্যাপ্ত জমির অভাব রয়েছে৷ বড় শহরগুলোর এখন যে কাঠামো সেখানে প্রতিবছর গড়ে তিন লাখ ফ্ল্যাট তৈরি সম্ভব নয়৷ তাই ছোট শহরগুলোতে সরকারি অফিস বসিয়ে সেখানকার গুরুত্ব বাড়াতে হবে, যেন মানুষজন সেখানে বসবাসে আগ্রহী হয়৷ এছাড়া ঐ শহরগুলোতে যোগাযোগ ব্যবস্থাও সহজ করতে হবে বলে মনে করছেন ইয়স্ট৷

এছাড়া নতুন ভবন নির্মাণের অনুমতি দিতে ধীরগতি, কঠোর নীতিমালা, দক্ষ নির্মাণ শ্রমিকের অভাব, নির্মাণ ব্যয় বৃদ্ধি - এগুলোও বাড়ি সংকটের কারণ বলে মনে করেন তিনি৷


আপনার মতামত লিখুন :
আরো পড়ুন
ফ্রান্স সিটি নির্বাচনে কাউন্সিলর প্রার্থী বাংলাদেশী  সরুফ ছদিওল

ফ্রান্স সিটি নির্বাচনে কাউন্সিলর প্রার্থী বাংলাদেশী  সরুফ ছদিওল

ফ্রান্সে আগামী ১৫ মার্চ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন আর এ নির্বাচনে…

নবীগঞ্জের সঈদ পুর বাজারের সিএনজি স্ট্যান্ড নিয়ে দুগ্রুপের সংঘর্ষ আহত ২০

নবীগঞ্জের সঈদ পুর বাজারের সিএনজি স্ট্যান্ড নিয়ে দু'গ্রুপের সংঘর্ষ আহত ২০

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার ৫নং আউশকান্দি ইউনিয়নের সঈদ পুর বাজার সিএনজি…

বঙ্গবন্ধুকে উৎসর্গ করে চবিতে শুরু মার্কেটিং কাপ

বঙ্গবন্ধুকে উৎসর্গ করে চবিতে শুরু মার্কেটিং কাপ

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীকে স্মরণীয় করে রাখতে…

তিন তলা থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু

তিন তলা থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু

সাভারের আশুলিয়ায় একটি ভবনের তিন তলা থেকে পড়ে রাস্তার উপর…

সীমান্তে হত্যার প্রতিবাদে জাবি ছাত্রের অনশন

সীমান্তে হত্যার প্রতিবাদে জাবি ছাত্রের অনশন

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে হত্যার প্রতিবাদে আমরণ অনশন বসেছেন এক বিশ্ববিদ্যালয়শিক্ষার্থী। আরিফুল…

ফ্রান্সে সিটি নির্বাচনে কাউন্সিলর প্রার্থী বাংলাদেশী দুই যুবক

ফ্রান্সে সিটি নির্বাচনে কাউন্সিলর প্রার্থী বাংলাদেশী দুই যুবক

 ইংল্যান্ড , কানাডা কিংবা আমেরিকাতে বাংলাদেশীরা যেভাবে দাপটের সাথে সে…

বাহুবলে ‘বঙ্গবন্ধু’ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত

বাহুবলে ‘বঙ্গবন্ধু’ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত

হবিগঞ্জ জেলার বাহুবলের ২নং পুটিজুরী ইউনিয়নের গাজীপুর মাঠে জাকজমক প্রস্তুতি,আনন্দক্ষন…

মেয়েকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ মায়ের বিরুদ্ধে

মেয়েকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ মায়ের বিরুদ্ধে

নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলার নোয়াখলা ইউনিয়ন থেকে মারিয়া আক্তার (১৫) নামে…