নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত:
৩১ মে, ২০১৯ ০৩:৫৭ পিএম


মাগুরার প্রত্যন্ত গ্রামে নির্মাণাধীন মদের বার গুঁড়িয়ে দিলেন বিক্ষুব্ধ স্থানীয় জনতা


মাগুরার প্রত্যন্ত গ্রামে নির্মাণাধীন মদের বার গুঁড়িয়ে দিলেন বিক্ষুব্ধ স্থানীয় জনতা

মাগুরার প্রত্যন্ত গ্রামে নির্মাণাধীন একটি মদের বার গুঁড়িয়ে দিয়েছেন সচেতন ও ধর্মপ্রাণ স্থানীয় জনগণ। আজ শুক্রবার বাদ জুমা স্থানীয় মুসল্লিগণ নিজেদের এলাকায় মদ ও মাদকজাতীয় দ্রব্যের আড্ডাখানা গড়ার প্রতিবাদে মাগুরা সদরের মঘী এলাকায় মাগুরা-যশোর মহাসড়কের পাশে নির্মাণাধীন ওই মদের বার অভিমুখে মিছিল নিয়ে যান। মদের বারের কাছে পৌঁছুলে বিক্ষুব্ধ জনতা একসময় ভাঙচুর করে গুঁড়িয়ে দেন পুরো বারটি।

মিছিলে অংশ নেওয়া তরুণ জাবির টা্ইম টিউনকে জানিয়েছেন, স্থানীয় জনগণ আজ জুমার পর শান্তিপূর্ণভাবে প্রতিবাদ করতে চেয়েছিলেন, কিন্তু মিছিল নিয়ে মদের বারের সামনে গেলে মিছিলের নেতৃত্ব যারা দিচ্ছিলেন তারা বিক্ষুব্ধ জনতাকে আর নিয়ন্ত্রণ করতে পারেননি, জনতা একযোগে ভাঙচুর করে গুঁড়িয়ে দেন ওই বারটি।

জাবির আরও জানান, গুঁড়িয়ে দেওয়া মদের বারটি একসময় মাগুরা শহরে ছিল। এ বারকে কেন্দ্র করে মাগুরা শহরে মাদক ও মদের ব্যাপকতা বৃদ্ধি পাওয়ায় এবং তরুণ ও যুবকদের একটক শ্রেণি এই বারের প্রতি আসক্ত হওয়ায় শহরের সচেতন ও ধর্মপ্রাণ নেতৃস্থানীয়রা কিছু দিন আগে এটাকে শহর থেকে উচ্ছেদ করেন। শহর থেকে বিতাড়িত হবার পর বার কর্তৃপক্ষ সদর উপজেলার মঘী নামক প্রত্যন্ত গ্রামে মাগুরা-যশোর মহাসড়কের পাশে এই বারটি পুনরায় চালু করে।

গত মাস দুয়েক ধরে বার চালু হবার পর থেকেই মঘীর আপামর জনসাধারণ এর তীব্র বিরোধিতা ও প্রতিবাদ করে আসছিলেন। কিন্তু বার কর্তৃপক্ষ প্রভাবশালী হবার কারণে গ্রামবাসীর আপত্তি ও প্রতিবাদ সত্ত্বেও বারে চলে আসছিল মদ ও মাদকের রমরমা ব্যবসা।

অবশেষে স্থানীয় আপামর জনতা নিরুপায় ও বিরক্ত হয়ে আজ এ প্রতিবাদ মিছিলের ডাক দেন এবং এরই পরিণতিতে গুঁড়িয়ে দেওয়া মদের পুরো বারটি।


আপনার মতামত লিখুন :
আরো পড়ুন
বদলে যাচ্ছে কওমি মাদরাসার পাঠ্যপুস্তকের মান ও ধরণ
হস্তলিপি থেকে কম্পিউটার কম্পোজ

বদলে যাচ্ছে কওমি মাদরাসার পাঠ্যপুস্তকের মান ও ধরণ

কওমি মাদরাসার সিলেবাসভুক্ত আরবি-উর্দু-ফারসি কিতাবগুলো অদ্ভুত এক ফন্টে লেখা। ডিজিটাল…

বহুমুখী সমস্যায় জর্জরিত ক্যান্সার-চিকিৎসা-সেবা
ব্যয় ও দুর্ভোগে দিশেহারা ভুক্তভোগীরা

বহুমুখী সমস্যায় জর্জরিত ক্যান্সার-চিকিৎসা-সেবা

ক্যান্সার রোগটা কেবল মরণব্যাধিই না, একই সঙ্গে পুরো একটা পরিবারকে…

বরিশালের মেহেন্দীগঞ্জে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

বরিশালের মেহেন্দীগঞ্জে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

আজ শনিবার সকালে বরিশালের মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলার চরহোগলা গ্রামে ফখরুল হাওলাদার…

শিশু হাফেজ ছাত্রদের নিয়ে কি ব্যবসা চলছে?

শিশু হাফেজ ছাত্রদের নিয়ে কি ব্যবসা চলছে?

বিভিন্ন আরব ও মুসলিম রাষ্ট্রে অনেকগুলো দেশের অংশগ্রহণে প্রতিবছর অনুষ্ঠিত…

বাহুবলে দ্বিগাম্বর ছড়ায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলন,আদালতে মামলা

বাহুবলে দ্বিগাম্বর ছড়ায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলন,আদালতে মামলা

হবিগঞ্জের বাহুবলে দিগাম্বর ছড়ায় অবৈধ ভাবে ড্রেজার মেশিন দিয়ে প্রতিনিয়ত…

নবীগঞ্জে মানসিক প্রতিবন্ধী ছাকিব নিখোঁজ

নবীগঞ্জে মানসিক প্রতিবন্ধী ছাকিব নিখোঁজ

হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার ১৩নং পানিউমদা ইউনিয়নের বড়চর গ্রামের মোঃ…

মালয়েশিয়ার অবৈদের ধরার জন্য, কঠোর পদক্ষেপ নিচ্ছে প্রশাসন

মালয়েশিয়ার অবৈদের ধরার জন্য, কঠোর পদক্ষেপ নিচ্ছে প্রশাসন

মালয়েশিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সে দেশে থাকা অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে একটি…

পাঠাও বাইক সার্ভিস সম্পর্কে কাস্টমার যা বললেন

পাঠাও বাইক সার্ভিস সম্পর্কে কাস্টমার যা বললেন

‘উবার' বা ‘পাঠাও'-এর মতো রাইড শেয়ারিং সম্পর্কে অনেক পাঠক তাদের…