সাংবাদিক : ইকবাল হাসান জাহিদ

প্রকাশিত:
২৩ এপ্রিল, ২০১৯ ০১:৪৫ এএম


ভার্সিটির মাল সিক্সপ্যাক হুজুরের আসল মুখোশ


ভার্সিটির মাল সিক্সপ্যাক হুজুরের আসল মুখোশ

সিক্সপ্যাক হুজুরের বক্তব্য ভার্সিটির মাল থেইকা অনেক মূল্যবান ও শালীন! কিন্তু তার বয়ানের প্রকাশভাব আর বডিল্যাংগুয়েজ দেখে ডেঞ্জারাস রকমের অহংকার আর বেয়াদবি প্রকাশ পায় বলেই আমার কাছে মনে হয়। 

লোকটার গোত্রীয় তারিফ শুনে বারবার বয়ানে যাই অনলাইনে, কিন্তু নবী রাসুলদের কথা বলতে গিয়ে তিনি বারবার অসতর্কতাবশত কীবা অভ্যাসগত কারণেই বেয়াদবিমূলক শব্দ ইউজ করেন। এরচে বড় কথা তিনি বিভিন্ন এলাকার আঞ্চলিক ভাষা সম্পর্কে মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্য দিয়ে অন্য অঞ্চলের মানুষকে বিভ্রান্ত করেন! অবশ্য এইটা অনেকের কাছে মামুলি ব্যাপার হইলেই আমার কাছে বিরাট গুরুত্বপূর্ণ কথা। কারণ দেশের সকল অঞ্চলের মানুষের আঞ্চলিক ভাষার প্রতি নিজেদের একটা ভালোবাসা কাজ করে। এই ভাষাকে হেয় করার অধিকার সিক্সপ্যাক হুজুরের নেই। 

অন্য আরেক জাগায় তিনি শরিয়তী বিয়ের ব্যাপারে ডেঞ্জারাস সীমালঙ্ঘন করেছেন। তিনি বর্তমান সময়ের ইহুদী খৃষ্টান মেয়েদের বিবাহ বৈধ বলে ফতোয়া দিয়েছেন। ভার্সিটির মাল একবার বক্তব্য দিতে গিয়ে সরকারের প্যাদানী খেয়েছিলেন। এই প্যাদানী থেকে বাচতে গিয়ে তিনি আরেক জাগায় বক্তব্য দিয়েছেন, "বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেই ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ছেন সেইটায় সহযোগিতা করা দেশের সকল মানুষের জন্য ওয়াজিব। তিনি বলেন, শেখ হাসিনা কুরআন শরীফ দেখে দেখে আইন করে দেশকে ডিজিটাল করার উদ্যোগ নিয়েছেন। আয়াতের উপর বিশ্লেষণ করেই সরকারের এই সকল উদ্যোগ।"

কথা হইলো সিক্সপ্যাক হুজুরও এই একই কায়দায় বলেছেন, যে আমাদের প্রধানমন্ত্রীর ছেলে জয় যেভাবে খৃষ্টান মেয়ে বিয়ে করেছেন, এইভাবে এখনকার ইহুদি খ্রিস্টান মেয়েদের বিয়ে করা যাবে। শর্ত হলো ইসলাম গ্রহণ করবে এই রকম কথা যদি থাকে। 

কিন্তু মিস্টার সিক্সপ্যাক হুজুর দুনিয়ার কোনো কিতাবে এমন আজগুবি শর্ত পেলেন, যা দিয়ে বর্তমান সময়ের মুসলমানদের সবচে বড় শত্রু ইহুদিদের মেয়েদের বিয়েকে জায়েজ বলে ফতোয়া দিলেন। 

এই সিক্সপ্যাক হুজুরের আজকের এক বক্তব্য শুনলাম, তিনি বারবার নবী রাসুলদের নাম নিচ্ছিলেন, বলছিলেন, "নবী মুসলিম ছিলো, কিন্তু তার ছেলে ছিলো অমুসলিম " রাসুল মুসলিম ছিলো, কিন্তু তার চাচা আবু তালিব ছিলো অমুসলিম" এখানে তিনি ছিলো বলেছেন রাসুলের শানে। অথচ আমরা ছোট বা অসম্মানিত লোকদের বেলায় ছিলো বলে থাকি, যেমন ছাত্রটা এসেছিলো, মুছিটা জুতা সেলাই করেছিলো, ধর্ষকটা বয়ষ্ক ছিলো! আর সম্মানিদের বেলায় বলি, তিনি এসেছিলেন, উনি বলেছিলেন, সাঈদী সাহেব বড় মুফাসসির ছিলেন, এখানে আমরা বলি না মিজানুর রহমান আজহারি বলেছিলো, বরং বলি বলেছিলেন"!

এই ভাষাগত আচার আর প্রকাশভঙ্গির বেয়াদবি ধরণ থেকে একজন সিক্সপ্যাক হুজুরকে বেরিয়ে আসা উচিত নয়কি? 
অহংকার পতনের মূল। সমাবেশে উপস্থিত জনতাকে ভালো ভাষায় সম্বোধন করলে নিজে ছোট হয়ে যাবেন না। বিশ্ব নন্দিত মুফাসসির মাওলানা দেলোয়ার হোসাইন সাঈদিকে ফলো করুন। তার শালীন ব্যবহার আর নিরহংকারী আচরণ থেকে শিখুন।


আপনার মতামত লিখুন :
গণমাধ্যম এর আরও খবর

আরো পড়ুন
মদিনা মার্কেটের কেয়ারটেকার আলীর কাছে মার্কেট ব্যবসায়ীরা জিম্মি

মদিনা মার্কেটের কেয়ারটেকার আলীর কাছে মার্কেট ব্যবসায়ীরা জিম্মি

সিলেট জেলার জালালাবাদ থানা দিন টুকুর বাজার ইউনিয়নের কুমারগাঁও এলাকার…

বাহুবলের ছাত্রী বৃষ্টিকে নিয়ে গর্বিত গৃহ শিক্ষক মামুন

বাহুবলের ছাত্রী বৃষ্টিকে নিয়ে গর্বিত গৃহ শিক্ষক মামুন

২০১৫ সালের এপ্রিল মাসের শেষের দিকে আমি যখন সৃজন জুনিয়র…

মদিনা মার্কেট মালিক ম্যানশনের কেয়ারটেকার আলীর আসল মুখোশ

মদিনা মার্কেট মালিক ম্যানশনের কেয়ারটেকার আলীর আসল মুখোশ

সিলেট জেলার জালালাবাদ থানা দিন টুকের বাজার ইউনিয়নের কুমারগাঁও এলাকার…

বাহুবলে প্রভাবশালী জিলুলের ছেলেরা কুটিকে জমিনে কুপিয়ে আহত

বাহুবলে প্রভাবশালী জিলুলের ছেলেরা কুটিকে জমিনে কুপিয়ে আহত

হবিগঞ্জ জেলার বাহুবল উপজেলার শংকরপুর গ্রামের বহু অপকর্মের হুতা জিলু…

বাহুবলে কাজের সমাপ্তির এক সপ্তাহের মধ্যে উঠে যাচ্ছে পিচঢালা,অনিয়মের জন্য দায়ী কে?

বাহুবলে কাজের সমাপ্তির এক সপ্তাহের মধ্যে উঠে যাচ্ছে পিচঢালা,অনিয়মের জন্য দায়ী কে?

হবিগঞ্জের বাহুবলে পাকা রাস্তার কাজ সমাপ্তির এক সপ্তাহ মধ্যেই পাকা…

বাংলাদেশে পাকিস্তানিদের জন্য ভিসা বন্ধ

বাংলাদেশে পাকিস্তানিদের জন্য ভিসা বন্ধ

দুই দেশের মধ্যকার কূটনৈতিক সম্পর্ক বিপর্যয়ের মুখে পড়ে এবার পাকিস্তানিদের…

আমান গ্রুপের ২ কর্মকর্তা আটক, অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

আমান গ্রুপের ২ কর্মকর্তা আটক, অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

মেঘনা নদী ভরাট করে গড়ে তোলা আব্দুল আমান গ্রুপের অবৈধ…

ফ্রান্সে সার্সেল বোমা বিস্ফোরণে শিশুসহ আহত ১৩

ফ্রান্সে সার্সেল বোমা বিস্ফোরণে শিশুসহ আহত ১৩

ইউরোপের দেশ ফ্রান্সের তৃতীয় বৃহত্তম শহর লিয়নের একটি ব্যস্ততম সড়কে…