অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশিত:
০৭ এপ্রিল, ২০১৯ ১২:৪০ পিএম
আপডেট:
০৭ এপ্রিল, ২০১৯ ১২:৫৯ পিএম


এ বছরই পরিশোধ করতে হবে শ্রমকল্যাণ তহবিলের অর্থ!


এ বছরই পরিশোধ করতে হবে শ্রমকল্যাণ তহবিলের অর্থ!

দেশের নিবন্ধিত সব প্রতিষ্ঠানকে শ্রমআইন-২০০৬ এর ২৩২ ধারা অনুযায়ী চলতি অর্থ বছরের মধ্যেই (২০১৮-১৯) নিট মুনাফার অংশ শ্রমকল্যাণ তহবিলে জমা দিতে হবে।

এমন নির্দেশ সম্বলিত চিঠি এপ্রিল মাসের মধ্যেই সব প্রতিষ্ঠানে পাঠানো হবে বলে জানা যায় শ্রমমন্ত্রণালয় সূত্রে।

সূত্রটি জানায়, ২০০৬ সালের শ্রমআইন অনুযায়ী যে কোনো প্রতিষ্ঠানের স্থায়ী সম্পত্তি ১ কোটি টাকা বা তার বেশি হলে নিট মুনাফার ৫ শতাংশ পাবেন কর্মীরা। এর মধ্যে ৮০ শতাংশ পাবেন সরাসরি কর্মীরা। আর বাকি ১০ শতাংশ দিয়ে প্রতিষ্ঠানের ভেতরের শ্রমকল্যাণ ফান্ডে ও ১০ শতাংশ দিতে হবে শ্রমকল্যাণ তহবিলে। কিন্তু শ্রমকল্যাণ তহবিলে দেশের নিবন্ধিত বেশির ভাগ কোম্পানিই অর্থ দেয় না। বারবার মৌখিকভাবে বলার পরও তারা শ্রমআইনের ধারাটি মানতে নারাজ।

এদিকে অর্থ আদায়ে গতি আনতে পারছে না শ্রমকল্যাণ তহবিল। অর্থ আদায়ে গতি আনতে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় থেকে শ্রমকল্যাণ তহবিলকে প্রতি মাসের পাঁচ তারিখের মধ্যে অর্থ আদায়ের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। শুধু তাই নয়, এ সংক্রান্ত সব বিষয়ে প্রতিবেদন তৈরি করে প্রতি মাসের পাঁচ তারিখের মধ্যে মন্ত্রণালয়ে জমা দেওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে শ্রমকল্যাণ তহবিলে।

আর শ্রমমন্ত্রণালয়ের নির্দেশ অনুযায়ীই নিবন্ধিত কোম্পানিগুলোর তালিকা তৈরির কাজ শুরু করেছে শ্রমকল্যাণ তহবিল। আর তালিকা তৈরির কাজ শেষ করে চলতি মাসের মধ্যেই সব কোম্পানিকে চিঠি দেওয়া হবে। চিঠির মাধ্যমে জুন মাসের মধ্যেই শ্রমকল্যাণ তহবিলে অর্থ জমা দেওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হবে বলে জানা যায় শ্রমকল্যাণ তহবিল সূত্রে।

এসব বিষয়ে শ্রমকল্যাণ তহবিলের মহাপরিচালক ডা. এ এম এম আনিসুল আওয়াল বার্তা২৪.কমকে বলেন, প্রতি মাসের পাঁচ তারিখের মধ্যে কোম্পানিগুলোর কাছ থেকে অর্থ আদায় করা কঠিন। এক এক কোম্পানি এক এক সময় এসে টাকা জমা দিয়ে যায়। আর এটি সত্য যে আমরা দেশের নিবন্ধিত সব কোম্পানিকে চিঠি দেবো চলতি মাসের মধ্যেই। আর ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের মধ্যেই শ্রমকল্যাণ তহবিলে কোম্পানিগুলোকে অর্থ দিতে হবে। শ্রমকল্যাণ তহবিলের তথ্য অনুযায়ী ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের ফেব্রুয়ারি মাস পর্যন্ত অর্থ আদায় হয়েছে ৪ কোটি ৭৪ লাখ টাকা। শুধু ফেব্রুয়ারি মাসেই আদায় হয়েছে ৩২ লাখ টাকা। এর মধ্যে অনুদান দেওয়া হয়েছে ২০ কোটি ২৪ লাখ টাকা।


আপনার মতামত লিখুন :
অর্থনীতি এর আরও খবর

আরো পড়ুন
অভিভাবকত্বের ছায়া হারাচ্ছে সিলেটের ধর্মীয় সমাজ
দেড় বছরে শীর্ষ ৯ আলেমের মৃত্যু 

অভিভাবকত্বের ছায়া হারাচ্ছে সিলেটের ধর্মীয় সমাজ

২০১৭-এর ডিসেম্বর থেকে ২০১৯-এর জুন—মাত্র দেড় বছরে ইন্তেকাল করেছেন সিলেট…

বহুমুখী সমস্যায় জর্জরিত ক্যান্সার-চিকিৎসা-সেবা
ব্যয় ও দুর্ভোগে দিশেহারা ভুক্তভোগীরা

বহুমুখী সমস্যায় জর্জরিত ক্যান্সার-চিকিৎসা-সেবা

ক্যান্সার রোগটা কেবল মরণব্যাধিই না, একই সঙ্গে পুরো একটা পরিবারকে…

শিশু হাফেজ ছাত্রদের নিয়ে কি ব্যবসা চলছে?

শিশু হাফেজ ছাত্রদের নিয়ে কি ব্যবসা চলছে?

বিভিন্ন আরব ও মুসলিম রাষ্ট্রে অনেকগুলো দেশের অংশগ্রহণে প্রতিবছর অনুষ্ঠিত…

বরিশালের মেহেন্দীগঞ্জে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

বরিশালের মেহেন্দীগঞ্জে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

আজ শনিবার সকালে বরিশালের মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলার চরহোগলা গ্রামে ফখরুল হাওলাদার…

বেফাকের অফিসিয়াল ওয়েব সাইটের দুর্দশা : দেখার কেউ নেই?

বেফাকের অফিসিয়াল ওয়েব সাইটের দুর্দশা : দেখার কেউ নেই?

বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ কওমি মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের অফিসিয়াল…

রুমিন ফারহানার বক্তব্যে আজও উত্তপ্ত সংসদ

রুমিন ফারহানার বক্তব্যে আজও উত্তপ্ত সংসদ

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানকে স্বাধীনতার ঘোষক এবং সংসদের বৈধতা নিয়ে…

পাঠাও বাইক সার্ভিস সম্পর্কে কাস্টমার যা বললেন

পাঠাও বাইক সার্ভিস সম্পর্কে কাস্টমার যা বললেন

‘উবার' বা ‘পাঠাও'-এর মতো রাইড শেয়ারিং সম্পর্কে অনেক পাঠক তাদের…

স্ত্রীর সহায়তায় চার বছর ধরে বন্ধুর মেয়েকে ধর্ষণ!

স্ত্রীর সহায়তায় চার বছর ধরে বন্ধুর মেয়েকে ধর্ষণ!

কুড়িগ্রামে স্ত্রীর সহায়তায় চার বছর ধরে বন্ধুর স্কুলপড়ুয়া মেয়েকে ধর্ষণ…