প্রকাশিত:
০৯ মার্চ, ২০১৯ ০৪:২৪ পিএম


ওজন কমিয়ে কমানো সম্ভব ডায়াবেটিস


ওজন কমিয়ে কমানো সম্ভব ডায়াবেটিস

একটা সময় মনে করা হতো, জীবনযাপনের প্রকৃতির ওপর টাইপ-টু ডায়াবেটিস হয় এবং একবার সেই রোগ হলে সারা জীবন ভুগতে হয়। আর দিনে দিনে পরিস্থিতি খারাপ হয়। তবে সম্প্রতি এক গবেষণায় বলা হয়েছে, ওজন কমিয়ে কয়েক বছরের জন্য সারানো সম্ভব টাইপ-টু ডায়াবেটিস। ইংল্যান্ডের এক গবেষণায় বলা হয়েছে, তিন মাস ধরে প্রতিদিন ৮৫০ ক্যালরিযুক্ত খাবার খেয়ে ওজন কমাতে পারলে তাতে অন্তত দুই বছর টাইপ-টু ডায়াবেটিস থেকে মুক্ত থাকা সম্ভব।

মানবদেহের অগ্ন্যাশয় থেকে ইনসুলিন নামের একটি হরমোন তৈরি হয়। খাবারের সাথে আমরা যেসব চিনি গ্রহণ করি ইনসুলিন সেই চিনিকে এনার্জিতে পরিণত করে। টাইপ-টু ডায়াবেটিসের ক্ষেত্রে অগ্ন্যাশয় ইনসুলিন তৈরি করতে পারলেও সেই ইনসুলিন ঠিকমতো কাজ করতে পারে না। ফলে শরীরে দিন দিন বাড়ে গ্লুকোজের পরিমাণ। একটা সময় অগ্ন্যাশয় ইনসুলিন তৈরি করার ক্ষমতা হারিয়ে ফেলে এবং মানবদেহ আক্রান্ত হয় টাইপ-টু ডায়াবেটিসে। যুক্তরাজ্যে প্রতি ১৬ জন প্রাপ্তবয়স্কের মধ্যে গড়ে একজন টাইপ-টু ডায়াবেটিসে শিকার। এই রোগে আক্রান্তদের শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণহীন হয়ে পড়ে এবং এর ফলে দৃষ্টিশক্তি সমস্যা, হূদরোগ এবং অঙ্গহানির মতো শারীরিক সমস্যায় ভুগতে হয়।

৫৮ বছর বয়স্ক জো ম্যাকসোরলি থাকেন স্কটল্যান্ডের গ্লাসগো শহরের কাছে। ছয় বছর আগে তার টাইপ-টু ডায়াবেটিস রোগ ধরা পড়ে। ঐ সময়ে চিকিত্সকদের দেয়া দুই ধরনের ওষুধ দিয়েও রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে পারছিলেন না। কিন্তু গত দুই বছর ধরে কম ক্যালরিযুক্ত খাবার খেয়ে নিজের ওজন কমিয়ে একটা স্থিতিশীল অবস্থায় নিয়ে এসেছেন। জো এখন নিয়মিত ব্যায়াম করেন। এখন তার টাইপ-টু ডায়াবেটিস অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে চলে এসেছে, তাও ওষুধ ছাড়াই।

স্কটল্যান্ডে মি. ম্যাকসোরলিসহ ১৪৯ জন মানুষ ১২ থেকে ৩০ সপ্তাহ কম ক্যালরির খাবার খাওয়ার কর্মসূচিতে অংশ নেন। ওজন কমানোর জন্য তাদের কম ক্যালরির শুধু তরল খাবার এবং পানীয় খেতে হতো। ওজন কমার পর কয়েক সপ্তাহ ধরে তাদের ধীরে ধীরে আবার সাধারণ খাবার খেতে দেয়া হয়। এক বছর পর দেখা গেল এদের মধ্যে ৬৯ জন রোগমুক্ত হন। মাত্র ৪ শতাংশ রোগীকে শর্করা কমাতে ওষুধের সাহায্য নিতে হয়। আর দুবছর পর এদের মধ্যে ৫৩ জন রোগমুক্ত থেকে যান এবং তাদের কোনো রকম ওষুধ খেতে হয় না।

এই গবেষণার সঙ্গে জড়িত অধ্যাপক রয় টেইলর বলছেন, এই ফলাফল বহুমূত্র রোগীদের জন্য খুবই আশাব্যঞ্জক। এতদিন মনে করা হতো টাইপ-টু ডায়াবেটিস একবার ধরলে আর ফেরার পথ নেই- সেই যুগের ওপর এবার অবসান হওয়ার পথ খুলে গেছে। —বিবিসি


আপনার মতামত লিখুন :
আরো পড়ুন
বাহুবলের ছাত্রী বৃষ্টিকে নিয়ে গর্বিত গৃহ শিক্ষক মামুন

বাহুবলের ছাত্রী বৃষ্টিকে নিয়ে গর্বিত গৃহ শিক্ষক মামুন

২০১৫ সালের এপ্রিল মাসের শেষের দিকে আমি যখন সৃজন জুনিয়র…

মদিনা মার্কেটের কেয়ারটেকার আলীর কাছে মার্কেট ব্যবসায়ীরা জিম্মি

মদিনা মার্কেটের কেয়ারটেকার আলীর কাছে মার্কেট ব্যবসায়ীরা জিম্মি

সিলেটের কতোয়ালী থানা দিন মদিনা মার্কেট মালিক ম্যানশন - সুপরিচিত…

বাংলাদেশে পাকিস্তানিদের জন্য ভিসা বন্ধ

বাংলাদেশে পাকিস্তানিদের জন্য ভিসা বন্ধ

দুই দেশের মধ্যকার কূটনৈতিক সম্পর্ক বিপর্যয়ের মুখে পড়ে এবার পাকিস্তানিদের…

বাহুবলে করাঙ্গী নদীতে বিষাক্ত রাসায়নিক পদার্থ ফেলে দেওয়ায় ভেসে উঠছে নদীর মাছ

বাহুবলে করাঙ্গী নদীতে বিষাক্ত রাসায়নিক পদার্থ ফেলে দেওয়ায় ভেসে উঠছে নদীর মাছ

হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলার করাঙ্গী নদীতে বিষাক্ত রাসায়নিক পদার্থ অবধারিত ভাবে…

বাহুবলে বিদ্যুতের ভেলকিবাজি অতিষ্ট জনজীবন,ঢাকা সিলেট মহাসড়ক অবরোধ

বাহুবলে বিদ্যুতের ভেলকিবাজি অতিষ্ট জনজীবন,ঢাকা সিলেট মহাসড়ক অবরোধ

হবিগঞ্জ জেলার বাহুবল উপজেলায় গত বেশ কিছুদিন ধরে অব্যাহত ভয়াবহ…

শিক্ষক স্বামীর পিটুনিতে শিক্ষিকা স্ত্রী আহত

শিক্ষক স্বামীর পিটুনিতে শিক্ষিকা স্ত্রী আহত

জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলায় যৌতুকের কারণে শিক্ষক স্বামীর হাতে পাশবিক নির্যাতনের…

রাজনৈতিক চাঁদাবাজদের মৃত্যু পরোয়ানার মুখে ব্যবসায়ীরা!

রাজনৈতিক চাঁদাবাজদের মৃত্যু পরোয়ানার মুখে ব্যবসায়ীরা!

ঢাকায় সন্ত্রাসীরা চাঁদা না পেলে মৃত্যু পরোয়ানা জারী করছে৷ হুমকি…

নকল ধরায় শিক্ষককে কিল-ঘুষি-লাথি

নকল ধরায় শিক্ষককে কিল-ঘুষি-লাথি

নকলের সুযোগ না দেওয়ায় পাবনার সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজে বাংলা…