টাইম টিউন ডেস্ক
প্রকাশিত:
০৩ নভেম্বর, ২০১৯ ১১:৫১ এএম


পেঁয়াজের কেজি ১৬০ টাকা, এক সপ্তাহে কেজিতে ৪০ টাকা বৃদ্ধি


পেঁয়াজের কেজি ১৬০ টাকা, এক সপ্তাহে কেজিতে ৪০ টাকা বৃদ্ধি

খুচরা বাজারে লাগামহীনভাবে বাড়ছে পেঁয়াজের দাম। এক সপ্তাহের ব্যবধানে প্রতি কেজিতে দাম বেড়েছে ৪০ টাকা। এ হিসাবে প্রতিদিন গড়ে বেড়েছে পৌনে ৬ টাকা করে। শনিবার রাজধানীর বিভিন্ন বাজারে ভালো মানের প্রতি কেজি পেঁয়াজ সর্বোচ্চ ১৬০ টাকা কেজি বিক্রি হয়েছে। এক সপ্তাহ আগেই বিক্রি হয়েছে ১২০ টাকা কেজি। খুচরা ব্যবসায়ীরা বলছেন, পাইকারি বাজারে দাম বাড়ার কারণে তারাও বেশি দামে বিক্রিতে বাধ্য হচ্ছেন।

এদিকে বাজার তদারকিতে রয়েছে সরকারের একাধিক সংস্থা। তারা পাইকারি বাজার থেকে পেঁয়াজ মজুদের তথ্য সংগ্রহ করে সরবরাহ পরিস্থিতি পর্যালোচনা করছেন। এর ভিত্তিতে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে সরকারি সংস্থাগুলোর তদারকির কোনো ইতিবাচক প্রভাব বাজারে পড়ছে না।

শনিবার রাজধানীর পুরান ঢাকায় পাইকারি মার্কেট শ্যামবাজারে প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১৩৫ টাকা, ভারতীয় ১৩৫ টাকা, মিসরের ১০৫ টাকা ও মিয়ানমারের ১২০ টাকা। খুচরা বাজারে মিসরেরটা ১২০ টাকা, মিয়ানমারের ১৩০ টাকা, ভারতের ১৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। ভালো মানের দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১৬০ টাকা কেজি। ১৪০ থেকে ১৫৫ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে মাঝারি মানেরটি। এক সপ্তাহ আগে খুচরা বাজারে ১০০ থেকে ১২০ টাকা কেজি বিক্রি হয়েছে।

ওই সময়ে পাইকারি বাজারে প্রতি কেজির দাম ছিল ৮০ থেকে ১১০ টাকা। ব্যবসায়ীরা জানান, ভারত পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করার আগে যেসব এলসি খোলা হয়েছিল সেগুলো ইতিমধ্যে দেশে এসে গেছে। এখন আর নতুন করে আসছে না। এছাড়া মিয়ানমার থেকেও খুব বেশি আসছে না। মিসর ও তুরস্ক থেকে আমদানির উদ্যোগ নেয়া হয়েছে সেগুলো আগামী সপ্তাহে দেশে এসে পৌঁছবে। এরপর বাজারে দাম কমে যাবে বলে মনে করছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

এদিকে মিয়ানমার থেকে ভারতের চেয়ে কম দামে আমদানির সুযোগ থাকলেও আমদানি হচ্ছে কম। কেননা মিয়ানমারের সঙ্গে সীমান্ত বাণিজ্যের আওতায় কোনোরকম এলসি ছাড়াই পণ্য আমদানি হচ্ছে। বিশেষ করে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা নগদ ডলারে মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজ আমদানি করতে পারেন। এ কারণে বড় আকারে কোনো চালান আসছে না। ছোট ছোট চালানের মাধ্যমে আসছে। ওই দেশ থেকে ছোট আকারে শনিবারও চালান এসেছে।

সেগুলো কিনতে সেখানে চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার অঞ্চলের পাইকাররা ভিড় করেছেন। সরবরাহের চেয়ে চাহিদা বেশি হওয়ায় ওখানেও এর দাম বেশি। এছাড়া রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমার যেতে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা নিরুৎসাহিত হচ্ছেন। এ কারণে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা ব্যাংকিং চ্যানেলে মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজ আমদানির উদ্যোগ নেয়ার সুপারিশ করেছেন। এজন্য দুই দেশের উচ্চ পর্যায়ে আলোচনা করতে হবে।

সূত্র জানায়, বাংলাদেশে বছরে পেঁয়াজের চাহিদা ২৪ লাখ টন। এর মধ্যে দেশে উৎপাদন হয় ১৪ থেকে ১৫ লাখ টন। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এবার ১৬ লাখ টন পেঁয়াজ উৎপাদনের আশা করা হচ্ছে। আগামী ডিসেম্বরের শুরু থেকে দেশি নতুন পেঁয়াজ বাজারে আসতে শুরু করবে। ওই সময়ে দাম আরও কমে যাবে বলে জানান ব্যবসায়ীরা।


আপনার মতামত লিখুন :
অর্থনীতি এর আরও খবর

আরো পড়ুন
সিলেটের সাংস্কৃতিক সংগঠন বিএফ ভির চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বলাৎকারের অভিযোগ

সিলেটের সাংস্কৃতিক সংগঠন বিএফ ভির চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বলাৎকারের অভিযোগ

সিলেটের ইসলামিক সাংস্কৃতিক সংগঠন বিএফ ভি “বাংলা ফিউচার ভয়েস” -এর…

সবচেয়ে কম খরচে ইমরানের বিদেশ সফর

সবচেয়ে কম খরচে ইমরানের বিদেশ সফর

ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরামের সম্মেলনে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিজের সফরকে সবচেয়ে…

নবীগঞ্জের সঈদ পুর বাজারের সিএনজি স্ট্যান্ড নিয়ে দুগ্রুপের সংঘর্ষ আহত ২০

নবীগঞ্জের সঈদ পুর বাজারের সিএনজি স্ট্যান্ড নিয়ে দু'গ্রুপের সংঘর্ষ আহত ২০

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার ৫নং আউশকান্দি ইউনিয়নের সঈদ পুর বাজার সিএনজি…

বঙ্গবন্ধুকে উৎসর্গ করে চবিতে শুরু মার্কেটিং কাপ

বঙ্গবন্ধুকে উৎসর্গ করে চবিতে শুরু মার্কেটিং কাপ

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীকে স্মরণীয় করে রাখতে…

তিন তলা থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু

তিন তলা থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু

সাভারের আশুলিয়ায় একটি ভবনের তিন তলা থেকে পড়ে রাস্তার উপর…

মৌলভীবাজারে অগ্নিকাণ্ডে একই পরিবারের পাঁচ জনের মৃত্যু

মৌলভীবাজারে অগ্নিকাণ্ডে একই পরিবারের পাঁচ জনের মৃত্যু

মৌলভীবাজার শহরের এম সাইফুর রহমান রোডে একটি ভবনে ভয়াবহ অন্ডিকাণ্ডের ঘটনা…

মোদী ঢাকায় আসছেন ১৭ মার্চ

মোদী ঢাকায় আসছেন ১৭ মার্চ

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন ভারতীয়…

সীমান্তে হত্যার প্রতিবাদে জাবি ছাত্রের অনশন

সীমান্তে হত্যার প্রতিবাদে জাবি ছাত্রের অনশন

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে হত্যার প্রতিবাদে আমরণ অনশন বসেছেন এক বিশ্ববিদ্যালয়শিক্ষার্থী। আরিফুল…