মুফতী সামসুদ্দোহা

প্রকাশিত:
২৬ অক্টোবর, ২০১৯ ০৪:৪৬ পিএম


একটি ভয়ংকর চক্রান্ত : এখনই রোধ করা না গেলে আক্রান্ত হতে পারি যে কেউ


একটি ভয়ংকর চক্রান্ত : এখনই রোধ করা না গেলে আক্রান্ত হতে পারি যে কেউ

কেউ কোন অপরাধ করলে বা অপরাধী কার্যক্রমের সাথে যুক্ত থাকলে তাঁর অবশ্যই বিচার হওয়া উচিৎ। একজন নাগরিক হিসেবে এটা আমরা সবাই সমর্থন করি। কিন্তু সেটা অবশ্যই তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে স্বাভাবিক আইনি প্রক্রিয়ায় হতে হবে। এটা একজন নাগরিকের প্রাপ্য অধিকার।

নিছক ধারণা বশত, সন্দেহজনকভাবে বা নাটক সাজিয়ে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হলে তা কোনভাবেই মেনে নেয়া যায়না। এটা অন্যায়।

গত ২১ অক্টোবর র‍্যাব ৪-এর অফিসিয়াল পেইজে একটি সংবাদ দেখলাম। যা বিভিন্ন গণমাধ্যমেও দেখানো হয়েছে। ৪জন জঙ্গী আটক করা হয়েছে। গাবতলী থেকে। রবিবার সারারাত অপারেশন চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে।

মাওলানা সাইফুল ইসলাম নামে একজনকে মূল জঙ্গি সাজিয়ে এক বিস্তারিত রিপোর্ট করা হয়েছে। সংবাদে প্রকাশিত ছবি-ভিডিও এবং দিন তারিখ দেখে থ খেয়ে গেলাম।

আরে! এ মাওলানা তো নিখোঁজ প্রায় দু সপ্তাহ যাবত! ডিবি পরিচয়ে তাকে তুলে নিয়ে গিয়েছিল কয়েকজন লোক। বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমেও এ খবর এসেছে। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাকে পাওয়া যাচ্ছিল না।

আজ যাও সংবাদ পাওয়া গেল তবে সে আর আগের মাওলানা সাইফুল নয়! এখন সে বাংলাদেশের শীর্ষ জঙ্গিদের একজন! গ্রেফতার হয়েছেন গতকাল রাতে! হায় হায়!

আমি মাওলানা সাইফুলের ব্যক্তিগত চিন্তাধারা, কার্যক্রমের ব্যাপারে পুরোপুরি অবগত নই। তবে এতটুকু জানি সে অমুসলিমদের মাঝে দাওয়াতি কাজ করে। তাঁর নিখোঁজ হওয়ার বিষয়টি অবগত হয়েছি প্রতিষ্ঠান ও সংবাদমাধ্যমে।

বলা হচ্ছে তাকে রবিবার রাতে অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাহলে সে এতদিন কোথায় ছিল? কারা তাকে ডিবি পরিচয়ে নিয়ে গিয়েছিল?

যদি সে আসলেই কোনো অপরাধ করে থাকে তাহলে সাক্ষ্যপ্রমাণসহ নিয়মতান্ত্রিকভাবে বিচারের সম্মুখীন করা হউক। কিন্তু তা না করে দুসপ্তাহ আগে গুম করে দুসপ্তাহ পর বিশাল জঙ্গী নেতা বানিয়ে হাজির করালে কিছুই বলার নেই।

গুম হওয়া আরও ভাইদেরকেও একইভাবে আরও বড় শীর্ষ জঙ্গী হিসেবে হাজির করলে আশ্চর্য হব না। গুম-খুনের এদেশে সবই সম্ভব মনে হচ্ছে।

অনুরোধ হে পরম শ্রদ্ধেয় মুরুব্বিরা, অগ্রজরা, স্নেহভাজনরা এ বিষয় নিয়ে আপনারা একটু এগিয়ে আসুন। এ অরাজকতা নিয়ে কথা বলুন। না হয় এভাবে চলতে থাকলে আমরা সবাই অপরাধী হয়ে যাব।

আমাদের বড় অপরাধ আমরা হুজুর, টুপি আছে দাঁড়ি আছে। আর কি লাগে!বানিয়ে দিবে জঙ্গী। যখন-তখন, যাকে তাকে।

আমি মনে করি এটা একটি ভয়ংকর চক্রান্ত;এখনই রোধ করা না গেলে আক্রান্ত হতে পারি যে কেউ,যে কোন সময়।
আল্লাহ আমাদের সবাইকে হেফাজত করুন।

উল্লেখ্য, গ্রেফতার হওয়া মাওলানা সাইফুল সাহেব ব্যতীত বাকিদের ব্যাপারে আমার জানা নাই। তারা কখন কেন কিভাবে গ্রেফতার হয়েছেন।


আপনার মতামত লিখুন :
মতামত এর আরও খবর

আরো পড়ুন
ফ্রান্স থেকে ইয়াবর নামের ব্যক্তিকে বাংলাদেশ পুলিশের কাছে হস্তান্তর

ফ্রান্স থেকে 'ইয়াবর' নামের ব্যক্তিকে বাংলাদেশ পুলিশের কাছে হস্তান্তর

সিলেটের ওসমানি নগরের বাসিন্দা 'ইয়াবর'(৪৫) তিনি ২০১৫ সালে প্যারিসে আসেন…

ভারী তুষার ও অতিরিক্ত ঠান্ডায় বিপর্যস্ত ফ্রান্স বাসিন্দা , নিহত ২

ভারী তুষার ও অতিরিক্ত ঠান্ডায় বিপর্যস্ত ফ্রান্স বাসিন্দা , নিহত ২

গতকাল ফ্রান্সের দক্ষিনপূর্বে আরডিসি , দ্রোমি ,ইসেরা এবং রনি ডিপার্টমেন্টে…

জগন্নাথপুর ছাত্রলীগ ক্যাডার,রাজুর টার্গেট ‘ব্রিটিশ নাগরিকরা

জগন্নাথপুর ছাত্রলীগ ক্যাডার,রাজুর টার্গেট ‘ব্রিটিশ নাগরিকরা

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলায় রাজু নামের ছাত্রলীগ ক্যাডার, এ নেতার যন্ত্রনায়…

পেঁয়াজের পর এবার বাড়ছে চালের দাম

পেঁয়াজের পর এবার বাড়ছে চালের দাম

পেঁয়াজের পর এবার হঠাৎ করে কুষ্টিয়ায় চালের বাজার অস্থির হয়ে…

১৮০ টাকা কেজিতে পেঁয়াজ বিক্রি, দেড় লাখ টাকা জরিমানা

১৮০ টাকা কেজিতে পেঁয়াজ বিক্রি, দেড় লাখ টাকা জরিমানা

শরীয়তপুরের পালং বাজার ও আংগারিয়া বাজারে চড়া দামে পেঁয়াজ বিক্রি…

কিশোরকণ্ঠ মেধা বৃত্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

কিশোরকণ্ঠ মেধা বৃত্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

কিশোরকণ্ঠ পাঠক ফোরাম সিলেট মহানগরী আয়োজিত মেধাবৃত্তি পরীক্ষা-২০১৯ অনুষ্ঠিত হয়েছে।…

৭ দিনের মধ্যে পেঁয়াজের দাম না কমলে হস্তক্ষেপ: হাইকোর্ট

৭ দিনের মধ্যে পেঁয়াজের দাম না কমলে হস্তক্ষেপ: হাইকোর্ট

পেঁয়াজের অস্বাভাবিক দাম এক সপ্তাহের মধ্যে না কমলে হস্তক্ষেপ করবেন…

মনে রাখতে হবে, পেঁয়াজও পচে যায়

মনে রাখতে হবে, পেঁয়াজও পচে যায়

পেঁয়াজ মজুদ করে কেউ কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করতে চাইলে তাদের…